বাংলাদেশ পরিচিতি

Bangladesh
  • বাংলাদেশ ইংল্যান্ডের উপনিবেশ ছিল এবং পাকিস্তান হতে স্বাধীনতা লাভ করে।
  • বাংলাদেশের সম্পূর্ণ নাম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ
  • বাংলাদেশকে ইংরেজিতে বলা হয় The People’s Republic of Bangladesh
  • বাংলাদেশের আয়তন ১,৪৭,৬১০ বর্গ কি.মি.।
  • বাংলাদেশের মোট সীমানা ৫,১৩৮ কি.মি.।
  • সীমান্তবর্তী দেশ ২টি, ভারত ও মিয়ানমার
  • মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের মোট সীমান্ত ২৭১ কি.মি.।
  • ভারতের সাথে বাংলাদেশের সীমান্ত ৪,১৫৬ কি.মি.।
  • বাংলাদেশের স্থানীয় সময় গ্রিনিচ মান সময় + ৬ ঘন্টা
  • বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস ২৬ শে মার্চ
  • বিজয় দিবস ১৬-ই ডিসেম্বর।  
  • বাংলাদেশের রাজধানীর নাম ঢাকা
  • বাংলাদেশের বাণিজ্যিক রাজধানী হল চট্টগ্রাম
  • বাংলাদেশের ঋতু ৬টি (গ্রীষ্ম, বর্ষা, শরৎ, হেমন্ত, শীত ও বসন্ত)।
  • বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত রচয়িতা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
  • বাংলাদেশের জাতীয় প্রতীক হল, উভয় পাশে ধানের শীষবেষ্টিত পানিতে ভাসমান জাতীয়  ফুল শাপলা। তার মাথায় পাট গাছের পরস্পর সংযুক্ত তিনটি পাতা এবং উভয় পাশে দুটি করে তারকা।
  • বাংলাদেশের রাষ্টভাষা বাংলা
  • বাংলাদেশের জাতীয়তা বাঙ্গালি
  • বাংলাদেশের নাগরিকদের নাগরিত্ব বাংলাদেশি
  • বাংলাদেশের রাষ্ট ধর্ম ইসলাম
  • বাংলাদেশে গড় বৃষ্টিপাতের পরিমান ২০৩ সেন্টিমিটার
  • ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্রের সংখ্যা ৪টিঃ 

১) বেতবুনিয়া- ১৯৭৫

২) তালিবাবাদ- ১৯৮২

৩) মহাখালী- ১৯৯৫

৪) এবং সিলেট- ১৯৯৭

  • বাংলাদেশের প্রশাসনিক বিভাগ ৮টি
  • বাংলাদেশের বিভাগ সমূহের তথ্যঃ

ব্রিটিশ শাসনামলে তৎকালীন বাংলা প্রদেশে ১৮২৯ সালে প্রথম বিভাগ গঠন করা হয়। সে সময় বর্তমান বাংলাদেশের ভূখন্ডে ঢাকা, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম এই তিনটি বিভাগ গঠন করা হয়। পরবর্তীতে রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের একাংশ ‍নিয়ে ১৯৬০ খুলনা বিভাগ গঠিত হয়। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধকালীন সময়ে বাংলাদেশে এই ৪টি বিভাগই ছিল।  পরবর্তীতে ১৯৯৩ সালে বরিশাল, ১৯৯৮ সালে সিলেট, ২০১০ সালে রংপুর এবং ২০১৫ সালে ময়মনসিংহ বিভাগ গঠন করে বর্তমানে দেশে বিভাগ রয়েছে ৮টিময়মনসিংহকে সর্বশেষ ৮ম বিভাগ হিসেবে ঘোষণা করা হয় ২০১৫ সালে। পূর্বে এটি ঢাকা বিভাগের অংশ ছিল। ১৯৮২ সালে বাংলা উচ্চারণের সাথে ইংরেজি বানানের সামঞ্জস্যতার জন্য ঢাকা বিভাগ এবং ঢাকা শহরের ইংরেজি বানান Dacca থেকে পরিবর্তন করে Dhaka করা হয়।

  • বাংলাদেশের বিভাগের প্রশাসনিক প্রধানকে বলা হয় কমিশনার
  • বাংলাদেশের সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগে জেলার সংখ্যা কমা (৪টি)।
  • ঢাকা বিভাগে জেলার সংখ্যা বেশি (১৩টি)।
  • বাংলাদেশের প্রথম বিভাগ ঢাকা
  • আয়তনের দিক থেকে বাংলাদেশের বৃহত্তম বিভাগ চট্টগ্রাম
  • আয়তনের দিক থেকে বাংলাদেশের ক্ষুদ্রতম বিভাগ ময়মনসিংহ
  • বাংলাদেশের জনসংখ্যার ঘনত্ব বেশি ঢাকা বিভাগে।
  • বাংলাদেশের জনসংখ্যার ঘনত্ব কম বরিশাল বিভাগে।
  • বাংলাদেশের ঢাকা বিভাগ জনসংখ্যায় বৃহত্তম।
  • জনসংখ্যায় ক্ষুদ্রতম বিভাগ বরিশাল
  • বনভূমির পরিমান বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগে বেশি।
  • বনভূমির পরিমান বাংলাদেশের রাজশাহী বিভাগে কম।
  • বাংলাদেশে দারিদ্রোর হার বেশি বরিশাল বিভাগে।
  • বাংলাদেশে দারিদ্রোর হার কম সিলেট বিভাগে। 
  • বাংলাদেশে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার বেশি সিলেট বিভাগে।
  • বাংলাদেশে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কম বরিশাল বিভাগে।
  • বাংলাদেশে স্বাক্ষরতার হার বেশি বরিশাল বিভাগে।
  • বাংলাদেশে স্বাক্ষরতার হার কম সিলেট বিভাগে।
  • বাংলাদেশের জেলা সমূহঃ

বাংলাদেশ এবং ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর শাসনের সুবিধার্থে প্রশাসনিক একক হিসেবে মহকুমা সৃষ্টি করা হয়। ১৮৪২ সালে প্রথম কয়েকটি থানার সমন্বয়ে মহকুমা সৃষ্টি করা হয়। মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে বাংলাদেশে ৪টি বিভাগ ১৯টি জেলা ও ৪৪টি মহকুমা ‍ছিল। ১৯৮৪ সালে প্রশাসনিক সংস্কারের আওতায় উপজেলা প্রথা প্রবর্তন করা হয়। এর আওতায় ৪৬০টি থানাকে উপজেলা হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয় এবং মহকুমা প্রথা বিলুপ্ত করে যে সকল মহকুমা ছিল তাদেরকে জেলায় রূপান্তরিত করা হয়। বঙ্গদেশে গঠিত হয় প্রথম জেলা চট্টগ্রাম১৬৬৬ সালে চট্টগ্রাম জেলা গঠন করা হয়। বাংলাদেশের বর্তমান জেলা ৬৪টি

  • বাংলাদেশে আয়তনে বৃহত্তম জেলা রাঙামাটি।
  • বাংলাদেশে আয়তনে ক্ষুদ্রত্তম জেলা নারায়ণগঞ্জ।
  • বাংলাদেশে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার বেশি গাজীপুরে জেলায়।
  • বাংলাদেশে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কম বাগেরহাট জেলায়।